সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

Sonali eSheba অ্যাপ থেকে ঘরে বসেই অনলাইনে সোনালী ব্যাংকের একাউন্ট খোলা যায়। জানুন কি কি লাগবে ও কিভাবে একাউন্ট খুলবেন বিস্তারিত।

বাংলাদেশের জনপ্রিয় সকল ব্যাংকিং সেবা প্রতিষ্ঠান গুলোর মধ্যে অন্যতম একটি জনপ্রিয় প্রতিষ্ঠান হল সোনালী ব্যাংক। এই ব্লগে মাত্র ৫ মিনিটে সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে এবং সোনালী ব্যাংকে একাউন্ট করতে কি কি প্রয়োজন সে সম্পর্কে জানানো হবে।

বর্তমান সময়ে বাংলাদেশে অধিকাংশ মানুষ সোনালী ব্যাংক ব্যবহার করে। যার ফলে বর্তমান সময়ে ব্যাংকগুলোর মধ্যে জনপ্রিয়তার শীর্ষে সোনালী ব্যাংক। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে টাকা লেনদেনের জন্য অবশ্যই একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট প্রয়োজন।

আসুন জানি কিভাবে সোনালী ব্যাংকে নিজেই একাউন্ট খুলবেন।

সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খোলার জন্য প্রথমে আপনার মোবাইলে Sonali eSheba অ্যাপটি ইনস্টল করুন। তারপর Mobile Number Verify করে আপনার Selfie তুলুন এবং এনআইডি নম্বর লিখুন। এনআইডির উভয় পাশের ছবি তুলুন। সবশেষে ঠিকানা, পেশা, একাউন্টের ধরণ ও নমিনির তথ্য দিয়ে ব্যাংক একাউন্ট খুলতে পারবেন।

এছাড়া আপনি চাইলে সরাসরি ব্যাংকে গিয়ে একাউন্ট খোলার ফরম পূরণ করেও হিসাব খুলতে পারবেন। তবে সবচেয়ে সহজ হচ্ছে অনলাইনে Sonali eSheba অ্যাপ থেকে একাউন্ট খোলা।

সাধারণত ২ উপায়ে আপনি সোনালী ব্যাংকে একাউন্ট খুলতে পারেন,

  1. অনলাইনে Sonali eSheba অ্যাপ ব্যবহার করে
  2. সরাসরি ব্যাংকে গিয়ে ফরম পূরণের মাধ্যমে

এখানে আপনি eSheba অ্যাপ থেকে কিভাবে একাউন্ট খুলবেন, কি কি ডকুমেন্ট লাগবে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খুলতে কি কি লাগে

সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খুলতে প্রয়োজন হয়,

  1. আবেদনকারীর জাতীয় পরিচয় পত্র, অথবা জন্ম নিবন্ধন, অথবা পাসপোর্ট।
  2. পাসপোর্ট সাইজের ২ কপি ছবি।
  3. নমিনির পাসপোর্ট সাইজের ১ কপি ছবি এবং জাতীয় পরিচয় পত্র।

এছাড়াও যদি কোন ডকুমেন্টস প্রয়োজন হয় তা পরবর্তীতে ব্যাংক থেকে জানিয়ে দেওয়া হবে।

অনলাইনে সোনালী ব্যাংকে একাউন্ট খোলার নিয়ম 

অনলাইনে সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খুলতে মোবাইলে Sonali eSheba অ্যাপটি মোবাইলে ইনস্টল করতে হবে। এরপর Mobile Number Verify করে আপনার ছবি তুলুন এবং এনআইডির উভয় পাশের ছবি তুলুন। সবশেষে ঠিকানা, পেশা, হিসাবের ধরণ ও নমিনির তথ্য দিয়ে সাবমিট করুন। আবেদন ফরমটি প্রিন্ট করে ব্যাংকের শাখায় জমা দিয়ে একাউন্ট খুলতে পারবেন।

একাউন্ট খোলার বিস্তারিত প্রক্রিয়া দেখতে নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন।

আরও পড়ুন- ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

ধাপ ১: অ্যাপস ডাউনলোড এবং ইন্সটল

সোনালী ই-সেবা অ্যাপস ডাউনলোড করার জন্য গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে Sonali eSheba লিখে সার্চ করুন অথবা Sonali eSheba এখানে ক্লিক করে অ্যাপসটি ডাউনলোড করতে পারবেন। অ্যাপটি ডাউনলোড সম্পূর্ণ হলে ওপেন করুন।

ধাপ ২: মোবাইল নাম্বার ভেরিফিকেশন করুন

Sonali eSheba অ্যাপসে প্রবেশের পরে Open Bank A/C অপশনে ক্লিক করলে আপনাদের একটি বিশেষ নির্দেশনা দেখানো হবে। নির্দেশনা যথাযথভাবে পড়ে Ok  বাটনে ক্লিক করুন। এরপরে একটি  সচল মোবাইল নাম্বার বসিয়ে Next  বাটনে ক্লিক করুন।

সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

সোনালী ব্যাংক থেকে আপনাদের প্রদত্ত মোবাইল নাম্বারে একটি OTP কোড পাঠানো হবে, OTP কোডটি যথাযথভাবে বসিয়ে ভেরিফিকেশন সম্পন্ন করবেন।

ধাপ ৩: Face Verification এবং অন্যান্য তথ্য প্রদান

অনলাইনে সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

এখান থেকে আপনাদের ফেইস ভেরিফিকেশন কমপ্লিট করতে হবে। এবং ভোটার আইডি কার্ড অনুযায়ী জন্ম তারিখ ও ভোটার আইডি কার্ড নাম্বার অথবা জন্ম নিবন্ধন সনদ নাম্বার প্রদান করতে হবে। 

যথাক্রমেঃ 

  • প্রথমে জন্ম তারিখ সিলেক্ট করুন। 
  • এরপরে ভোটার আইডি কার্ড নাম্বার বসিয়ে দিন।
  • অথবা জন্ম নিবন্ধন সনদ নাম্বার বসিয়ে দিতে পারেন। 

সব থেকে ভালো হয় ভোটার আইডি কার্ড নাম্বার প্রদান করলে। এরপরে ওপরে থাকা ক্যামেরা আইকনে ক্লিক করে ভোটার আইডি কার্ড অনুযায়ী আবেদনকারীর একটা ছবি তুলুন। অবশ্যই ছবিটি স্পষ্ট থাকতে হবে এবং পিছনে সুন্দর ব্যাকগ্রাউন্ড থাকতে হবে। ছবি ভেরিফিকেশন সফল হলে Next বাটনে ক্লিক করুন।

আরও পড়ুন- সিটি ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

ধাপ ৪: এনআইডি অনুযায়ী সকল তথ্য চেক 

Next বাটনে ক্লিক করার পরে আপনাদের প্রদত্ত ভোটার আইডি কার্ড অথবা জন্ম নিবন্ধন সনদ অনুযায়ী আপনাদের সকল তথ্য চলে আসবে। এবং যদি অটোমেটিক ভাবে তথ্যগুলো না আসে সেক্ষেত্রে ম্যানুয়াল ভাবে আপনি ভোটার আইডি কার্ড অনুযায়ী এগুলো বসিয়ে দিবেন।

এরপরে Spouse information থেকে যদি আপনি বিবাহিত হন সে ক্ষেত্রে আপনার স্ত্রীর নাম বসিয়ে দিবেন। যদি অবিবাহিত হন সেক্ষেত্রে কিছু বসানোর দরকার নেই। এরপরে Next বাটনে ক্লিক করুন।

ধাপ ৫: জাতীয় পরিচয় পত্রের ছবি তুলুন

অনলাইনে সোনালী ব্যাংক একাউন্ট করার নিয়ম

এখান থেকে প্রথমে ক্যামেরা আইকনে ক্লিক করে আপনাদের ভোটার আইডি কার্ডের সামনের সাইডের ছবি তুলে নিবেন এরপরে Next বাটনে ক্লিক করুন। ঠিক একই ভাবে আপনার ভোটার আইডি কার্ডের ব্যাক সাইডের ছবি তুলে Next  বাটনে ক্লিক করুন। ছবিগুলো তোলার ক্ষেত্রে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন ভোটার আইডি কার্ডের সকল লেখা গুলো যেন স্পষ্ট বুঝা যায়।

আরও পড়ুন- অগ্রণী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

ধাপ ৬: Branch সিলেক্ট ও নমিনির তথ্য প্রদান করুন

সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

এই অপশন থেকে প্রথমে আপনাদের এরিয়া তথা ব্যাংকের ব্রাঞ্চ সিলেক্ট করবেন। এরপরে আপনাদের একাউন্টের ধরন সিলেক্ট করুন। যথাক্রমে আপনার প্রফেশন সিলেক্ট করুন। Nominee information থেকে নমিনির নাম ও নমিনির সাথে আপনার সম্পর্ক এবং নমিনির জাতীয় পরিচয় পত্র নাম্বার বসিয়ে দিন।

যথাক্রমেঃ

  • ব্যাংকের ব্রাঞ্চ সিলেক্ট করুন।
  • একাউন্টের ধরন নির্বাচন করুন।
  • আপনার প্রফেশন সিলেক্ট করুন।
  • নমিনির নাম বসিয়ে দিন।
  • নমিনির সাথে আপনার সম্পর্ক সিলেক্ট করুন।
  • নমিনির জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বার দিন।

উক্ত তথ্যগুলো যথাযথভাবে প্রদান করে Create Account বাটনে ক্লিক করুন। অভিনন্দন সফলভাবে আপনার সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খোলা হয়েছে। পরবর্তীতে আপনারা অ্যাপসের মধ্যে প্রবেশ করলে আপনাদের অ্যাকাউন্ট নাম্বার ও ট্রানজেকশন এর প্রত্যেকটি স্টেপ এবং একাউন্ট সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য পেয়ে যাবেন।

ধাপ ৭: KYC সম্পন্ন করুন ও স্বাক্ষর কার্ডে স্বাক্ষর প্রদান করুন

অনলাইনে একাউন্ট খোলার ৩ মাসের মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী KYC সম্পন্ন করতে হবে। এছাড়া লেনদেনের জন্য আপনি চেকে যে স্বাক্ষর ব্যবহার করবেন সেই স্বাক্ষর নমুনা স্বাক্ষর হিসেবে ব্যাংকের নির্ধারিত কার্ডে দিতে হবে।

আরও পড়ুন- সোনালী ব্যাংকের চেক লেখার নিয়ম

আবেদন ফরম প্রিন্ট করুন

Sonali eSheba অ্যাপ থেকে একাউন্ট খোলার পর আপনার মোবাইলে একটি আবেদন ফরম তৈরি হবে। এই ধাপে আপনাকে যা করতে হবে তা হচ্ছে, আবেদন ফরমটি প্রিন্ট করে ব্যাংকের শাখায় জমা দিতে হবে।

সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খোলার আবেদন ফরমটি প্রিন্ট করতে,

  1. আপনার ফাইল ম্যানেজারে প্রবেশ করবেন।
  2. ফাইল ম্যানেজারের ভিতরে Sonali Sheba নামে একটি ফোল্ডার তৈরি আছে।
  3. এই ফোল্ডারটি ওপেন করে এখানে ৩টি  ফাইল দেখতে পাবেন।
  4. ফাইলগুলো হলো আপনার NID Card এবং ছবি ও একটি PDF ফাইল আছে। PDF ফাইলটি হলো আপনার ব্যাংক একাউন্ট খোলার আবেদনপত্র।

আবেদন জমা দিন

আবেদনটির প্রিন্ট কপির সাথে আপনাকে আপনার ২ কপি ছবি ও এনআইডির কপি এবং নমিনির এনআইডি ও ১কপি ছবি জমা দিতে হবে।

ব্যাংক থেকে আপনাকে একটি সিগনেচার কার্ড প্রদান করা হবে এবং উক্ত কার্ডে আপনার সিগনেচার প্রদান করে ডকুমেন্টস গুলো জমা দিবেন। তাহলে লাইফ টাইম এর জন্য আপনার একাউন্ট সচল থাকবে।

অনলাইনে সোনালী ব্যাংকের একাউন্ট খোলার ক্ষেত্রে সতর্কতা

অনলাইনে Sonali eSheba অ্যাপস ব্যবহার করে সোনালী ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট খোলার পরে ব্যাংকে না গিয়ে ৩ মাস এই অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে পারবেন। ৩ মাস পরে এই অ্যাকাউন্টটি সচল রাখতে অবশ্যই আপনাকে ৭ নং ধাপ অর্থাৎ KYC সম্পন্ন করতে হবে।

আপনি যদি ৩ মাসের ভিতরে উক্ত ডকুমেন্টগুলো জমা না দেন সেক্ষেত্রে আপনার সোনালী ব্যাংক একাউন্টটি বন্ধ হয়ে যাবে। Sonali eSheba অ্যাপসের মাধ্যমে একাউন্ট খোলার পর থেকে ডকুমেন্টগুলো জমা দেওয়ার আগ পর্যন্ত আপনি প্রত্যেক মাসে সর্বোচ্চ ১ লক্ষ টাকা ট্রানজেকশন করতে পারবেন।

ব্যাংকে গিয়ে সিগনেচার করে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস গুলো জমা দেওয়ার পরে ব্যাংক থেকে আপনি চেক বই এবং ডেবিট কার্ড অথবা ক্রেডিট কার্ড সংগ্রহ করতে পারবেন।

সবথেকে ভালো হয় অ্যাকাউন্ট খোলার ১ মাসের মধ্যে ব্যাংকে উপস্থিত হয়ে উক্ত ডকুমেন্টসগুলো প্রদান করা।

সরাসরি ব্যাংকে গিয়ে একাউন্ট খোলার নিয়ম 

সরাসরি ব্যাংকে উপস্থিত হয়ে সোনালী ব্যাংক একাউন্ট করার জন্য প্রথমে আপনার নিকটস্থ থাকা সোনালী ব্যাংকের ব্রাঞ্চে উপস্থিত হন। এবং ওখানে কর্মরত ব্যাংক কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করে আবেদন ফরম সংগ্রহ করুন। সঠিকভাবে সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খোলার ফরম পূরণ করে যথাযথ ডকুমেন্টস সংযুক্ত করে আবেদন ফরমটি ব্যাংকে জমা দিন।

অথবা আপনারা চাইলে Form download এখানে ক্লিক করে সোনালী ব্যাংকের সকল লোন আবেদন ফরম ডাউনলোড করতে পারেন। অনলাইনের মাধ্যমে সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে উপরে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। উক্ত পদ্ধতি অবলম্বন করে ঘরে বসে অনলাইনে সোনালী ব্যাংকে একাউন্ট খুলতে পারবেন।

সোনালী ব্যাংক বন্ধ একাউন্ট খোলার নিয়ম

লেনদেন না করার কারণে ব্যাংক একাউন্ট সাময়িক স্থগিত বা বন্ধ হয়ে যায়। সাময়িকভাবে বন্ধ সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খোলার জন্য, ব্যাংকের শাখার ম্যানেজার বরাবর “পুনরায় হিসাব চালু করার আবেদন” বিষয়ে একটি লিখিত আবেদন করতে হবে।

FAQs

সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খুলতে কত টাকা লাগে?

সোনালী ব্যাংক একাউন্ট খুলতে সেভিংস একাউন্টে নুন্যতম জমার পরিমাণ ৫০০ টাকা ও কারেন্ট একাউন্টে ১০০০ টাকা জমা দিয়ে একাউন্ট খুলতে হয়।

জন্ম নিবন্ধন দিয়ে কি ব্যাংক একাউন্ট খোলা যাবে?

হ্যাঁ, জন্ম নিবন্ধন ও পাসপোর্ট দিয়ে ব্যাংক একাউন্ট খোলা যাবে।

সোনালী ব্যাংক কি অনলাইন?

হ্যাঁ, সোনালী ব্যাংকে অনলাইনে লেনদেন করা যায়। Sonali E Wallet অ্যাপ থেকে ঘরে বসেই অনলাইনে লেনদেন করতে পারবেন।

সোনালী ব্যাংক কি সরকারী?

হ্যাঁ, সোনালী ব্যাংক ১০০% সরকারি মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক।

ক্যাটাগরিব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম
হোমপেইজEservicesbd

Please Subscribe our YouTube Channel

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।