জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি ডাউনলোড ২০২২

শুধুমাত্র জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি ডাউনলোড করা যায়। দেখুন কিভাবে অনলাইন থেকে জন্ম সনদ ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি ডাউনলোড

এই পোস্টে আলোচনা করা হয়েছে কিভাবে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করবেন এবং জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি ডাউনলোড করবেন। অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন চেক (jonmo nibondhon jachai) করা বা জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে এই পোস্টটি অবশ্যই আপনার উপকারে আসবে।

শুধুমাত্র জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারবেন বা Online Birth Certificate Check করতে পারবেন। জানতে পারবেন আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন বা ডিজিটাল কিনা।

বাংলাদেশের প্রত্যেক নাগরিকের জন্ম নিবন্ধন তথ্য অনলাইনে দেখা যায়। এটা দেখার জন্য অবশ্যই ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ প্রয়োজন হবে।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করার জন্য আপনার মোবাইলের গুগল ক্রোম থেকে online BRIS ওয়েবসাইট everify.bdris.gov.bd ভিজিট করুন। উক্ত সাইটে ভিজিট করার পর নিচের মত একটি পেইজ পাবেন। এখানে ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে পারবেন।

Birth Registration Online – জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা আছে কিনা (jonmo tarik diye nibondon bair kora) দেখার উপায় এখানে দেখে নিন। Birth Certificate Online Verify বা অনলাইনে জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি খুবই সহজ। যদি আপনার কম্পিউটার না থাকে, আপনি চাইলে মোবাইলে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারবেন।

শুধুমাত্র জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই করা যাবে। জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন।

ধাপ ১: অনলাইনে বার্থ সার্টিফিকেট ভেরিফাই করতে online BRIS ওয়েবসাইট everify.bdris.gov.bd ভিজিট করুন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই

ধাপ ২: এখানে আপনার ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বরটি লিখুন (উদাহরণ- 19860915428117351)। Date of Birth এই বক্সে জন্ম তারিখ লিখুন এই ফরমেটে জন্ম নিবন্ধন যাচাই YYYY MM DD

ওয়েবসাইট ব্যবহারকারী মানুষ (Human) কিনা চেক করার জন্য একটি গাণিতিক প্রশ্ন বা ক্যাপচা দেওয়া হয়। এটির সঠিক উত্তরটি নিচের বক্সে লিখে Search বাটনে ক্লিক করুন। আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ সঠিক থাকলে আপনার তথ্যগুলো দেখতে পাবেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি ডাউনলোড

ধাপ ৩: জন্ম নিবন্ধনের অনলাইন কপি ব্যবহারের জন্য এই পেইজটি প্রিন্ট করুন বা PDF হিসেবে Save করতে পারেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি

আশা করি আপনার জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করতে পেরেছেন এই পেইজটি হচ্ছে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই কপি।  বিভিন্ন ক্ষেত্রে আমাদের তথ্যের নিশ্চয়তার জন্য জন্ম নিবন্ধনের ভেরিফিকেশন কপি প্রয়োজন হতে পারে। আপনি এটি প্রিন্ট করে ব্যবহার করতে পারেন।

১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন যাচাই

১৬ ডিজিটের জন্য নিবন্ধন যাচাই করার জন্য নিবন্ধন নম্বরের শেষ ৫ ডিজিটের পূর্বে একটি (0) যুক্ত করে ১৭ ডিজিট করতে হবে। বিস্তারিত জানতে পড়ুন- জন্ম নিবন্ধন ১৬ ডিজিট থেকে ১৭ ডিজিট করার নিয়ম

পূর্বে জন্ম নিবন্ধনগুলো প্রথমে হাতে লেখা ও পরে অনলাইন ডাটাবেইজে নেয়া হয়। হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধনগুলো ১৩/১৬ ডিজিটের ছিল। বর্তমানে জনসংখ্যা বৃদ্ধির পরিমাণ মাথা রেখে এটিকে ১৭ ডিজিটে রুপান্তর করা হয়।

তাছাড়া নিবন্ধন তথ্যসমূহ সম্পূর্ণ অনলাইন বেইজড করা হয়েছে। তাই যদি আপনার নিবন্ধন নম্বর ১৬ ডিজিট হয়ে থাকে, এর ১৭ ডিজিট নম্বর ও আপডেটেড ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড সংগ্রহ করে নিন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই 19860915428117351

জন্ম নিবন্ধন যাচাই 19860915428117351 এ ধরনের ১৭ ডিজিট দিয়েই করা যায়। শুধুমাত্র ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করা যাবে। যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর ১৬ ডিজিটের হয় এটি ১৭ ডিজিটে রুপান্তর করতে হবে।

পড়ুন- কিভাবে ১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন ১৭ ডিজিট করবেন

আমাদের অনেকে যারা প্রথম দিকে নিবন্ধন করেছিলাম, তাদের জন্ম সনদটি হাতে লেখা ছিল। ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা ও সিটি কর্পোরেশনে রেজিষ্টার বইতে আমাদের তথ্যসমূহ লিপিবদ্ধ ছিল।

পরবর্তীতে এসকল তথ্য অনলাইন ডাটাবেইজে আনা হয়। তখন থেকে জন্ম নিবন্ধন সনদকে ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন (Digital Birth Registration Certificate) বা অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদ বলা হয়।

জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত সকল প্রয়োজনীয় তথ্য

নতুন জন্ম নিবন্ধনজন্ম নিবন্ধন আবেদন
ডাউনলোডজন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড
সংশোধনজন্ম নিবন্ধন সংশোধন
ইংরেজি করুনজন্ম নিবন্ধন ইংরেজি করার নিয়ম
হারিয়ে গেলেজন্ম নিবন্ধন হারিয়ে গেলে করণীয়
অনলাইনে না থাকলেজন্ম নিবন্ধন অনলাইনে না থাকলে কি করতে হবে
১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন যাচাই
জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত সকল তথ্যজন্ম নিবন্ধন
হোমপেইজে যানHome

জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড PDF

জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করার জন্য everify.bdris.gov.bd ওয়েবসাইটে যান। এখানে আপনার জন্ম নিবন্ধন লিখুন এবং ও জন্ম তারিখ বাছাই করুন। তারপর ক্যাপচা পূরন করে Search বাটনে ক্লিক করলে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ পাবেন। এটি PDF হিসেবে সেইভ করে নিন।

সত্যি বলতে অনলাইনে আপনি (Official Birth Certificate) অফিশিয়াল ইউনিয়ন পরিষদ জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে পারবেন না। তবে, জন্ম সনদ অনলাইন ভেরিফিকেশন কপি ডাউনলোড করতে পারবেন।

এজন্য, আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধনটি যাচাই করুন। এবার তথ্য স্ক্রিনে আসলে, কম্পিউটারের (Ctrl+P) চাপ দিয়ে পেইজটির প্রিন্ট কপি বা PDF হিসেবে সেইভ করে নিতে পারেন।

জন্ম নিবন্ধন সনদ আপনার হাতের কাছে না থাকলে জরুরী প্রয়োজনে, জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই কপিটি ব্যবহার করতে পারবেন।

নাম দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই

Birth certificate online verification- নাম দিয়ে জন্ম নিবন্ধন চেক করার সুযোগ শুধুমাত্র ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা বা সিটি কর্পোরেশনেই করা যায়। সাধারণ জনগণের জন্য অনলাইনে নাম দিয়ে জন্ম সনদ যাচাই করার সুযোগ নেই।

জন্ম নিবন্ধন হারিয়ে গেলে এবং আপনার নিবন্ধন নম্বর জানা না থাকে, সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ থেকে আপনার নাম দিয়ে সার্চ করে নিবন্ধন নম্বরটি জেনে নিতে পারেন।

ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন যাচাই – Online Birth Certificate Check

বিভিন্ন প্রয়োজনে অনেক সময় অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল কিনা যাচাই (online birth certificate check) করার প্রয়োজন হতে পারে।

কারো জন্ম নিবন্ধন তথ্য সঠিক কিনা বা জন্ম নিবন্ধন সনদ আসল কিনা তা যাচাই করে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই কপি (Jonmo Nibondhon Online Check Bangladesh) ডাউনলোড করতে পারবেন।

তবে যদি আপনার ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নাম্বার ও জন্ম তারিখ দিয়ে সার্চ করার পরও No Record Found মেসেজ আসে, এর ২টি কারণ হতে পারে।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন তথ্য না পাওয়ার কারণ

১ম সম্ভাব্য কারণ হতে পারে, আপনার জন্ম 01/01/2001 এর পূর্বে এবং আপনার জন্ম নিবন্ধনটি হাতে লেখা যেটি অনলাইন ডাটাবেইজে অন্তর্ভুক্ত হয়নি

২য় কারণটি হতে পারে, আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর ভুল আছে বা জন্মতারিখ ও নিবন্ধন নম্বর এই ২টির মধ্যে কোথায় গরমিল হচ্ছে।

এ সমস্যা সমাধানের উপায় হলো, আপনাকে নতুনভাবে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে হবে। আরো জানতে পড়ুন- জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে না থাকলে যা করবেন

আশা করি আপনার সমস্যা ১ কার্যদিবসের মধ্যেই সমাধান হয়ে যাবে।

শুধুমাত্র জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম তথ্য যাচাই করতে পারবেন। মোবাইলে জন্ম নিবন্ধন চেক করার জন্য জন্ম নিবন্ধন ওয়েবসাইট ক্লিক করুন।

জন্ম নিবন্ধন তথ্যে ভুল থাকলে সংশোধন কিভাবে করবেন

জন্ম নিবন্ধন তথ্য অনুসন্ধান করার পর যদি দেখতে পান আপনার নিবন্ধন সনদে কোন তথ্যে ভুল আছে, অতিসত্বর তা সংশোধনের জন্য আবেদন করে সংশোধন করিয়ে নেন। কারণ জন্ম নিবন্ধন সনদে ভুল থাকলে তা পরবর্তীতে বিভিন্ন সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে।

বর্তমানে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করা অনেক কঠিন ও ঝামেলাপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে, আপনি অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার আবেদন করতে পারেন। 

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন যাচাই

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের আবেদন করার পর অবশ্যই আবেদনের কপি ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিবন্ধকের কার্যালয়ে জমা দিতে হয়। কাগজপত্র যাচাইয়ের পরই আপনার তথ্য সংশোধন করা হবে।

সংশোধন হয়েছে কিনা তা যাচাই করতে পারবেন online BRIS ওয়েবসাইট থেকেই। আপনি চাইলে মোবাইলেও এটি চেক করতে পারবেন। কিভাবে করবেন?

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন যাচাই করার জন্য জন্ম নিবন্ধন আবেদন অবস্থা যাচাই এ লিংকে ভিজিট করুন। করবেন। তারপর আবেদনের ধরণ হিসেবে সিলেক্ট করুন জন্ম নিবন্ধন সংশোধন এর আবেদন। তারপর আপনার Application ID ও জন্ম তারিখ লিখে দেখুন বাটনে ক্লিক করুন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন যাচাই

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন যাচাই কপি সংগ্রহের জন্য এই পেইজটির প্রিন্ট নিতে পারেন।

জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত আরো বিভিন্ন টিপস, পরামর্শ ও তথ্য জানতে পড়ুন- জন্ম নিবন্ধন

জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত প্রশ্ন ও উত্তর

কিভাবে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন চেক করা যায়?

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করার জন্য everify.bdris.gov.bd তে ভিজিট করে ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন চেক করতে পারবেন।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন কিভাবে দেখব?

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন দেখার জন্য আপনার ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে everify.bdris.gov.bd এ যাচাই করতে হবে। তথ্য সঠিক থাকলে আপনার নিবন্ধন তথ্য স্ক্রীনে দেখতে পাবেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই অ্যাপস কোনটি?

ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাইয়ের নতুন apps/ সার্ভার হচ্ছে everify.bdris.gov.bd

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে না থাকলে কি করতে হবে?

জন্ম নিবন্ধন তথ্য অনলাইনে পাওয়া না গেলে, আপনাকে প্রথমেই নিশ্চিত হতে হবে যে, আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বরটি সঠিক এবং ১৭ ডিজিট। নিবন্ধন নম্বরের প্রথম ৪ ডিজিট আপনার জন্ম সাল হবে। সঠিক জন্ম নিবন্ধন নম্বর জানার জন্য আপনার ইউনিয়ন পরিষদ/ পৌরসভা/ সিটি কর্পোরেশন কার্যালয়ে যোগাযোগ করুন। এরপরও পাওয়া না গেলে নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে হবে। বিস্তারিত জানতে পড়ুন- জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে না থাকলে কি করতে হবে

জন্ম নিবন্ধন ভুল হলে করণীয় কি?

জন্ম নিবন্ধনে কোন ভুল দেখা গেলে, আপনি তা সংশোধনের জন্য অনলাইনে আবেদন করুন। আবেদনের ক্ষেত্রে অবশ্যই প্রয়োজনীয় প্রমাণপত্র দাখিল করতে হবে। অনলাইনে সংশোধন করার নিয়ম জানতে পড়ুন জন্ম নিবন্ধন সংশোধন

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কিনা কিভাবে বুঝবো?

অনলাইনে 17 ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে নিবন্ধন যাচাই করার পর, আপনার তথ্য পাওয়া গেলে বুঝবেন আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আছে কিনা কিভাবে দেখবো?

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আছে কিনা যাচাই করার জন্য ভিজিট করুন everify.bdris.gov.bd ওয়েবসাইটে। এখানে ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে যাচাই করতে পারবেন এটি অনলাইনে আছে কিনা।

সকল আপডেট তথ্যের জন্য Facebook Page

Similar Posts

13 Comments

    1. শুধু মাত্র জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন এর তথ্য পাওয়া যাবে কি না গেলে কিভাবে যদি কেউ যানেন তাহলে খুব উপকৃত হবো।

  1. আপনি যে ইউনিয়ন পরিষদ বা পৌরসভা অথবা সিটি কর্পোরেশন থেকে জন্ম নিবন্ধন করেছিলেন শুধুমাত্র সেখান থেকেই ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কপি পেতে পারেন। অন্য কোথাও এটি পাবেন না। তবে অনলাইন থেকে শুধু ভেরিফিকেশন কপি নিতে পারবেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।