পেনশনার সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম ২০২৩ | পেনশনার সঞ্চয়পত্র

পেনশনার সঞ্চয়পত্রের নিয়ম অন্য সঞ্চয়পত্র থেকে কিছুটা আলাদা এবং এর মুনাফার হার সবচেয়ে বেশি। জানুন পেনশনার সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের নিয়ম ও মুনাফার হার সম্পর্কে।

আসসালামু আলাইকুম, আশা করি ভাল আছেন। এই পোস্টে জানাবো পেনশনার সঞ্চয়পত্র কি, কারা পেনশনার সঞ্চয়পত্র ক্রয় করতে পারবেন, পেনশনার সঞ্চয়পত্রের মুনাফা কত, কিভাবে ক্রয় করবেন বিস্তারিত। আশা করি আপনার সকল প্রশ্নের উত্তর পাবেন।

আসুন প্রথমে জানি পেনশনার সঞ্চয়পত্র কি।

পেনশনার সঞ্চয়পত্র কি

পেনশনার সঞ্চয়পত্র হচ্ছে অবসরপ্রাপ্ত সরকারী, আধা-সরকারী, স্বায়ত্তশাসিত, আধা-স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা/কর্মচারী, এবং মৃত চাকুরিজীবীর পারিবারিক পেনশন সুবিধাভোগী স্বামী, স্ত্রী এবং সন্তানদের জন্য বিশেষ সঞ্চয়পত্র। পেনশনার সঞ্চয়পত্র প্রথম চালু করা হয় ২০০৩ খিস্ট্রাব্দে। পেনশনার সঞ্চয়পত্রের মেয়াদ ৫ বছর।

পেনশনার সঞ্চয়পত্রের মূল্য হচ্ছে ৫০,০০০ টাকা;  ১,০০,০০০ টাকা; ২,০০,০০০ টাকা;  ৫,০০,০০০ ও ১০,০০,০০০ টাকা।

বাংলাদেশ জাতীয় সঞ্চয় ব্যুরো, বাংলাদেশ ব্যাংক শাখাসমূহ, বাণিজ্যিক ব্যাংকসমূহ এবং ডাকঘর থেকে এ সঞ্চয়পত্র ক্রয় ও ভাঙ্গানো যাবে।

পেনশনার সঞ্চয়পত্রের সুবিধা

  • ত্রৈমাসিকভিত্তিতে মুনাফা প্রদান করা হয়।
  • মুনাফার হার সর্বাধিক
  • নমিনী নিয়োগ করা যায়।
  • সঞ্চয়পত্রের ক্রেতা মারা গেলে নমিনী সাথে সাথেই অথবা মেয়াদ উত্তীর্ণের পর সঞ্চয়পত্র ভাঙ্গাতে পারেন।

একনজরে পেনশনার সঞ্চয়পত্রের গুরুত্বপূর্ন তথ্য

মেয়াদ১-৫ বছর
৫ বছর মেয়াদে সর্বোচ্চ মুনাফার হার১১.৭৬%
একক ব্যক্তির সর্বোচ্চ ক্রয়সীমা৫০ লক্ষ টাকা, তবে আনুতোষিক ও সর্বশেষ ভবিষ্য তহবিল হতে প্রাপ্ত অর্থের বেশী নয়।
মুনাফা প্রদান৩ মাস অন্তর

পেনশনার সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের নিয়ম

পেনশনার সঞ্চয়পত্র যারা ক্রয় করতে পারবেন

  • অবসরপ্রাপ্ত সরকারী, আধা-সরকারী, স্বায়ত্তশাসিত, আধা-স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও কর্মচারী
  • সুপ্রীম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত মাননীয় বিচারপতিগণ
  • সশস্ত্র বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সদস্য
  • মৃত চাকুরিজীবীর পারিবারিক পেনশন সুবিধাভোগী স্বামী অথবা স্ত্রী অথবা সন্তান

পেনশনার সঞ্চয়পত্র কিনতে কি কি লাগে

  • পেনশনার সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের আবেদন ফরম।
  • MICR চেক (ডিজিটাল চেকবুক-চেকের পাতায় গ্রাহকের নাম প্রিন্ট থাকে) (০১ লক্ষ টাকার বেশি হলে)।
  • ক্রেতার ০২ (দুই) কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি৷
  • ক্রেতার জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি।
  • ভবিষ্য তহবিলের মঞ্জুরীপত্র এবং প্রাপ্ত আনুতোষিকের মঞ্জুরীপত্র অথবা নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ কর্তৃক পি.এস.সি
  • নমিনীর ০২ (দুই) কপি পাসপাের্ট সাইজ ছবি এবং জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি।
  • ক্রেতার ই-টিনআইএন সার্টিফিকেটের ফটোকপি (০২ লক্ষ টাকার উপরে সঞ্চয়পত্র ক্রয়)
  • আয়কর রিটার্ণ দাখিলের রশিদ (৫ লক্ষ টাকার উপরের সঞ্চয়পত্র ক্রয়)

পেনশনার সঞ্চয়পত্রের মুনাফা

পাঁচ বছর মেয়াদি পেনশনার সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার ১১.৭৬ শতাংশ। তবে ১৫ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগ করা হলে সেক্ষেত্রে মুনাফার হার কমে ১০.৭৫ শতাংশ হবে। আর ৩০ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে মুনাফার হার হবে ৯.৭৫ শতাংশ।

আপনারা হয়তো জানেন যে, সঞ্চয়পত্রের মুনাফা বিনিয়েগের পরিমাণ ও মেয়াদের উপর নির্ভর করে থাকে। ১ বছর মেয়াদে বিনিয়োগের চেয়ে ৫ বছর মেয়াদে বিনিয়োগ করলে মুনাফার হার তুলনামূলক বেশি হবে। অপরদিকে বিনিয়োগকৃত টাকার পরিমাণ বেশি হলে, মুনাফার হার তুলনামূলক কম হবে।

জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তরের সর্বশেষ হাল-নাগাদ নিয়ম অনুযায়ী, পেনশনার সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার নিচের ছকে দেয়া হলো।

মেয়াদ১৫,০০,০০০ টাকা পর্যন্ত১৫,০০,০০১ টাকা হতে
৩০,০০,০০০ টাকা পর্যন্ত
৩০,০০,০০১ টাকার উর্দ্ধে
১ম বছরান্তে৯.৭০%৮.৮৭%৮.০৪%
২য় বছরান্তে১০.১৫%৯.২৮%৮.৪২%
৩য় বছরান্তে১০.৬৫%৯.৭৪%৮.৮৩%
৪র্থ বছরান্তে১১.২০%১০.২৪%৯.২৯%
৫ম বছরান্তে১১.৭৬%১০.৭৫%৯.৭৫%
পেনশনার সঞ্চয়পত্রের মুনাফা হার

মুনাফা প্রদান

পেনশনার সঞ্চয়পত্রের মুনাফা প্রতি ৩ মাস অন্তর অন্তর মুনাফা প্রদান করা হয়। পেনশনার সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার অন্য যে কোন সঞ্চয়পত্রের মুনাফার চেয়ে বেশি হয়ে থাকে।

সঞ্চয়পত্রের মুনাফার উপর উৎসে কর কর্তন

পেনশনার সঞ্চয়পত্রে ৫,০০,০০০/- (পাঁচ লক্ষ) টাকা পর্যন্ত মোট বিনিয়োগের ক্ষেত্রে মুনাফার উপর কোন কর কর্তন করা  হয়না। তবে ৫,০০,০০০/- (পাঁচ লক্ষ) টাকার বেশি বিনিয়োগ করা হলে সকল বিনিয়োগের মুনাফার উপর ১০% হারে উৎসে কর কর্তন করা হয়।

প্রতি ৩ মাস পর পর মুনাফার থেকে কর বাদ দিয়ে অবশিষ্ট টাকা সঞ্চয়পত্র ক্রেতার ব্যাংক একাউন্টে জমা করা হবে।

পেনশনার সঞ্চয়পত্রে প্রতি লাখে কত টাকা মুনাফা পাবেন

পেনশনার সঞ্চয়পত্রে প্রতি লাখে ২৯৪০ টাকা মুনাফা পাবেন। মোট ১৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগের ক্ষেত্রে পেনশনার সঞ্চয়পত্রে ১১.৭৬% মুনাফা প্রদান করা হয়। ৫ লক্ষ বা তার কম বিনিয়োগের ক্ষেত্রে মুনাফার উপর কোন কর কর্তন হবে না। ফলে আপনি সম্পূর্ণ অংশই মুনাফা হিসেবে পাবেন।

আপনি যদি ৫ লক্ষ টাকার সঞ্চয়পত্র ক্রয় করেন প্রতি লাখে (১,০০,০০০ এর ১১.৭৬%) ১১,৭৬০ টাকা বাৎসরিক পাবেন। সুতরাং, প্রতি লাখে মুনাফা পাবেন- ১১,৭৬০/১২ মাস = ৯৮০ টাকা (মাসিক)। ৩ মাস অন্তর অন্তর ২৯৪০ টাকা আপনার একাউন্টে জমা হবে।

অর্থাৎ, মোট ৫ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করলে পেনশনার সঞ্চয়পত্রে প্রতি লাখে মাসিক ৯৮০ টাকা করে ৫ লক্ষ টাকায় (৯৮০*৫) = ৪৯০০ টাকা পাবেন। তিন মাস পর পর, (৪৯০০ * ৩) = ১৪৭০০ টাকা পাবেন।

আবার, ৫ লক্ষ টাকার বেশি এবং ১৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ করলে, মুনাফার উপর ১০% কর্তন করা হবে। এক্ষেত্রে প্রতি লাখে মাসে (৯৮০ এর ১০%) ৯৮ টাকা কর্তন করে ৯৮০-৯৮ = ৮৮২ টাকা পাবেন।

পেনশনার সঞ্চয়পত্র ভাঙ্গানোর নিয়ম

সঞ্চয়পত্র ভাঙ্গানোর জন্য এখন কোন আনুষ্ঠানিকতা পালন করতে হয় না। মেয়াদ শেষে স্বয়ংক্রীয়ভাবে আপনার ব্যাংক একাউন্টে মুনাফা সহ সঞ্চয়পত্রের মোট টাকা জমা হয়ে যাবে।

তবে মেয়াদ পূর্তির পূর্বে সঞ্চয়পত্র ভাঙ্গানোর জন্য আপনাকে লিখিত আবেদন করতে হবে। আবেদনের সাথে আপনার এনআইডি কার্ড, সঞ্চয়পত্রের রেজিস্ট্রেশন কপি ও সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের অনলাইন প্রিন্ট কপি জমা দিন। কয়েকদিনের মধ্যে সঞ্চয়পত্রের মূল টাকা মুনাফা সমন্বয় করে আপনার একাউন্টে জমা করা হবে।

আরও দেখুন- মেয়াদ পূর্তির পূর্বে সঞ্চয়পত্র ভাঙ্গানোর নিয়ম

FAQs

পেনশনার সঞ্চয়পত্র কি?

পেনশনার সঞ্চয়পত্র হচ্ছে অবসরপ্রাপ্ত সরকারী, আধা-সরকারী, স্বায়ত্তশাসিত, আধা-স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা বা কর্মচারী এবং মৃত চাকুরিজীবীর পারিবারিক পেনশনভোগী স্বামী, স্ত্রী এবং সন্তানদের জন্য বিশেষ সঞ্চয়পত্র।

পেনশনার সঞ্চয়পত্র কি হালাল?

যেকোন সঞ্চয়পত্রের সুদ বা মুনাফা হালাল নয়। কোথাও কোথাও একে মুনাফা বলা হলেও এটি প্রত্যক্ষভাবে সুদ।

পেনশনার সঞ্চয়পত্রে কি উৎসে কর বা আয়কর দিতে হয়?

পেনশনার সঞ্চয়পত্রে ৫,০০,০০০ টাকা পর্যন্ত মোট বিনিয়োগের ক্ষেত্রে মুনাফার উপর কোন কর কর্তন করা  হয়না। তবে ৫,০০,০০০ টাকার বেশি বিনিয়োগ করা হলে বিনিয়োগের মুনাফার উপর ১০% হারে উৎসে কর কর্তন করা হয়।

সঞ্চয়পত্র সংক্রান্ত আরও তথ্য

ক্যাটাগরিসঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম
পরিবার সঞ্চয়পত্রপরিবার সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম
সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্রসোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম ২০২২
৩ মাস অন্তর মুনাফাভিত্তিকতিন মাস অন্তর মুনাফাভিত্তিক সঞ্চয়পত্র
সঞ্চয়পত্র নগদায়নসঞ্চয়পত্র ভাঙ্গানোর নিয়ম
হোমপেইজMoneyAns

Please Subscribe our YouTube Channel

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।