নিজেই জন্ম নিবন্ধন নম্বর ১৬ ডিজিট থেকে কিভাবে ১৭ ডিজিট করবেন

অনেকেই যারা শুরুতে জন্ম নিবন্ধন করেছিলেন তাদের জন্ম নিবন্ধন সনদটি ছিল হাতে লেখা এবং নিবন্ধন নম্বর ১৬ ডিজিটের ছিল। জন্ম নিবন্ধন সিস্টেম আপডেট করার কারণে এ ধরনের ১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন যাচাই করলে অনলাইনে পাওয়া যায় না। আপনার যদি একই সমস্যা হয় বা নিবন্ধন নম্বরটি ১৬ ডিজিটের হয় কিভাবে ১৭ ডিজিটের শুদ্ধ নম্বরটি বের করবেন…

অনেকেই যারা শুরুতে জন্ম নিবন্ধন করেছিলেন তাদের জন্ম নিবন্ধন সনদটি ছিল হাতে লেখা এবং নিবন্ধন নম্বর ১৬ ডিজিটের ছিল। জন্ম নিবন্ধন সিস্টেম আপডেট করার কারণে এ ধরনের ১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন যাচাই করলে অনলাইনে পাওয়া যায় না। আপনার যদি একই সমস্যা হয় বা নিবন্ধন নম্বরটি ১৬ ডিজিটের হয় কিভাবে ১৭ ডিজিটের শুদ্ধ নম্বরটি বের করবেন তার কৌশল বলব।

প্রথমেই আমরা এই সমস্যাটির কারণটি বুঝার চেষ্টা করি।

১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন যাচাইয়ে সমস্যা কেন

সর্বপ্রথম যখন জন্ম নিবন্ধন ব্যবস্থা চালু হয়, তখন ইউনিয়ন পরিষদ বা পৌরসভায় একটি জন্ম নিবন্ধন রেজিষ্টারে আমাদের (নিবন্ধিত ব্যক্তির) তথ্য তালিকা আকারে সংরক্ষণ করা হত। এবং একটি প্রিন্টেড ফরমে হাতে লিখে আমাদের জন্ম সনদ (Birth Certificate) প্রদান করা হত। তখন এসব জন্ম নিবন্ধন নম্বর ছিল ১৬ ডিজিটের।

পরবর্তীতে ইন্টারসুবিধা বৃদ্ধি ও সরকারি সকল সেবা ডিজিটালাইজ করার কারণে একটি অনলাইনভিত্তিক সিস্টেম করা হয়। তাছাড়া জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার চিন্তা করে নিবন্ধন নম্বর ১৬ ডিজিট থেকে বাড়িয়ে ১৭ করা হয়।  বর্তমানে আপডেটেড জন্ম নিবন্ধন নম্বরটি অবশ্যই ১৭ ডিজিটের হবে।

এরপর এই রেজিস্টারের তথ্যাবলি অনলাইন ডাটাবেইজে আপলোড করার পরিকল্পনা করে সরকার। অনলাইনে নতুন কোন তথ্য আপলোড করার স্বয়ংক্রিয় কোন পদ্ধতি নেই। লোকবল দিয়ে এসব জন্ম নিবন্ধন রেজিস্টারের তথ্য অনলাইনে আপলোড করা হয়েছে।

ফলে অনেকের জন্য নিবন্ধন তথ্য আপলোড করা ভুলে বাদ পড়ে যায়। তাই, এসবক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধন ভেরিফিকেশন করতে গেলে No Record Found সমস্যা দেখায়। পড়ুন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন না থাকলে কি করতে হবে

জন্ম নিবন্ধন ১৭ ডিজিট করার নিয়ম

জন্ম নিবন্ধন ১৭ ডিজিট করার জন্য আপনার ১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বরের শেষ ৫ ডিজিটের পূর্বে একটি শুন্য (০) যোগ করতে হবে। অথবা প্রথম ১১ ডিজিটের পর শুন্য (০) যোগ করেও ১৭ ডিজিট করতে পারবেন  জন্ম সনদের ১৭ ডিজিটের মধ্যে প্রথম ৪ ডিজিট ব্যক্তির জন্ম সাল এবং শেষ ৬ ডিজিট ব্যক্তিগত পরিচিতি নম্বর। যেহেতু, পূর্বের জন্ম সনদে শেষ ৫ ডিজিট ব্যক্তিগত পরিচিতি নম্বর ছিল, সেটাকে ৬ ডিজিট করার জন্য শুরুতে একটি ০ যোগ করতে হবে।

১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন

এখানে খেয়াল করে দেখুন, নিবন্ধন নম্বরের শেষ ৫ ডিজিট হচ্ছে ০১৩১১। এখন আপনাকে এর ঠিক শুরুতে একটি শুন্য দিতে হবে, যেমন- ০০১৩১১। এরপর আপনার জন্ম নিবন্ধন যাচাই করে দেখুন।

আশা করি আপনার সমস্যা সমাধান হবে। যদি এরপর ও আপনার তথ্য অনলাইনে পাওয়া না যায় দেখুন-

জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যা ও সমাধান জানতে ভিজিট করুন- জন্ম নিবন্ধন। এছাড়া সরাসরি কোন প্রশ্নের উত্তর পেতে আমাদের Contact Page এ মেসেজ/ইমেইল করুন।

প্রশ্ন ও উত্তর

১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর কিভাবে ১৭ ডিজিট করব?

পুরাতন ১৬ ডিজিটের নিবন্ধন নম্বরের শেষ ৫ ডিজিটের পূর্বে একটি শুন্য (০) বসিয়ে ১৭ ডিজিট করতে পারবেন। অবশ্যই ১৭ ডিজিটের নম্বরটি অনলাইনে যাচাই করে নিশ্চিত হয়ে নিতে হবে। পড়ুন কিভাবে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করবেন

১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন কেন অনলাইনে পাওয়া যাচ্ছে না?

জন্ম সনদ অনলাইনে পাওয়া না যাওয়ার ২টি কারণ হতে পারে। প্রথমটি হতে পারে আপনার নিবন্ধন নম্বরটি ভুল। অন্য কারণটি হতে পারে, আপনার জন্ম নিবন্ধন তথ্যটি ভুলবশত অনলাইনে আপডেট করা থেকে বাদ পড়েছে। এজন্য, আপনি আপনার জন্ম সনদ নিয়ে রেজিষ্টারের কার্যালয়- ইউনিয়ন পরিষদ/পৌরসভা/ সিটি কর্পোরেশন অফিসে আপনার সমস্যাটি জানান।

জন্ম নিবন্ধন নিয়ে আরো তথ্য

  1. অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন ফরম পূরণ করার নিয়ম
  2. জন্ম নিবন্ধন সংশোধন
  3. জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজি
  4. অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই
  5. জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে না থাকলে কি করতে হবে
  6. জন্ম নিবন্ধন হারিয়ে গেলে করণীয়
  7. জন্ম নিবন্ধন প্রতিলিপির জন্য আবেদন

Similar Posts

3 Comments

  1. আমার জন্ম নিন্ধন 17 ডিজিট কিন্তু অনলাইনে নেই আপনারা যে রকম বলছেন আমি সেই রকম করলাম কিন্তু হলো না এখন কী করবো

    1. অনলাইনে পাওয়া না গেলে,প্রথমে জন্ম নিবন্ধন কপিটি নিয়ে আপনার ইউনিয়ন/পৌরসভা/ সিটি কর্পোরেশন অফিস যোগাযোগ করুন। সেখানেও অনলাইনে না পেলে নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন করুন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।