জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজি করার নিয়ম

পূর্বে জন্ম নিবন্ধন সনদ ইংরেজিতে হওয়া বাধ্যতামূলক না থাকলেও এখন আপনার জন্ম নিবন্ধনের তথ্য বাংলার পাশাপাশি ইংরেজিতে দেওয়া আবশ্যিক। কেন জন্ম নিবন্ধন ইংরেজিতে করতে হবে এবং কিভাবে অনলাইনেই বাংলা জন্ম নিবন্ধন থেকে ইংরেজি করবেন তা নিয়ে বিস্তারিত।

বিভিন্ন প্রয়োজনে জন্ম নিবন্ধন সনদ ইংরেজির প্রয়োজন হলেও এখন বাংলার পাশাপাশি ইংরেজি জন্ম নিবন্ধন করা আপনার জন্য বাধ্যতামূলক।

বর্তমানে বিভিন্ন নাগরিক সেবা পেতে অবশ্যই জন্ম সনদ ডিজিটাল বা অনলাইন হওয়া বাধ্যতামূলক। পাশাপাশি বাংলা ও ইংরেজি তথ্য ও জন্ম নিবন্ধন ডাটাবেইজে থাকতে হবে। যদি আপনার নিবন্ধন কপিটি হাতে লেখা হয়ে থাকে, এখনি আপনার সনদটি ডিজিটাল করে নেয়া উচিত।

আপনার জন্ম সনদ ডিজিটাল বা অনলাইন কিনা যাচাই করুন- অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই

জন্ম নিবন্ধন তথ্য ইংরেজিতে না থাকলে কি অসুবিধা নিবন্ধনে ব্যক্তিগত তথ্যসমূহ ইংরেজিতে না থাকলে কিছু সমস্যা তৈরি হবে। যেমন,

  • তথ্যসমূহ ইংরেজিতে না থাকলে, ভবিষ্যতে আপনার সন্তানের জন্ম নিবন্ধন করতে গেলে, তার পিতা-মাতার নাম ইংরেজিতে আসবেনা (যেটা লিখে/ এডিট করে সম্ভব নয় যদি জন্ম ২০০১ সালের পূর্বে হয়)
  • বিদেশ গমন বা ইংরেজি তথ্য বাধ্যতামূলক এমন কোথাও জন্ম নিবন্ধন সাবমিট করতে গেলে নিবন্ধন ইংরেজিতে থাকা প্রয়োজন।

কিভাবে জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজি করবেন

জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজি করতে প্রথমেই চেক করুন আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বরটি ১৭ ডিজিটের কিনা।

১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে আপনাকে জন্ম নিবন্ধনের তথ্য সংশোধনের আবেদন করতে হবে। আবেদনে আপনার তথ্য সমূহ বাংলার পাশাপাশি ইংরেজিতে দিবেন এবং আবেদনটি সাবমিট করবেন।

আপনার আবেদন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ (ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা বা সিটি কপোর্শন) কতৃক অনুমোদন হলেই জন্ম নিবন্ধন তথ্যসমূহ ইংরেজিতে অনলাইনে পাওয়া যাবে।

প্রয়োজনে, আপনি বাংলার পাশাপাশি ইংরেজিতেও একটি সনদ সংগ্রহ করতে পারেন।

সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি কিভাবে করবেন, তা দেখে নেয়া যাক।

জন্ম নিবন্ধন তথ্য ইংরেজিতে করার প্রক্রিয়া

জন্ম নিবন্ধন তথ্য ইংরেজিতে করার প্রক্রিয়াটি ধাপে ধাপে দেখানো হলো। এজন্য আমাদের ইংরেজি তথ্য সংযোজন করার অনলাইনে একটি আবেদন করতে হবে।

আবেদন করার জন্য নিচের ধাপসমূহ অনুসরণ করুন।

ধাপ ১ঃ জন্ম নিবন্ধন ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন

প্রথমে https://bdris.gov.bd/ এই ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন। নিচের মত একটি পেইজ আসবে। এখন থেকে জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন আবেদন মেন্যুতে ক্লিক করুন।

জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজি করার নিয়ম

ধাপ ২ঃ নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে আপনার জন্ম নিবন্ধন বের করুন

বক্সে আপনার ১৭ ডিজিটের নিবন্ধন নম্বর লিখুন ও জন্ম তারিখ সিলেক্ট করুন। তারপর অনুসন্ধান বাটনে ক্লিক করে আপনার নিবন্ধন তথ্য খুঁজে নিন।

যদি আপনার নিবন্ধন নম্বরটি ১৭ ডিজিটের না হয়। আপনি যে ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা বা সিটি কর্পোরেশনে জন্ম নিবন্ধন করেছেন, সেখানে যোগাযোগ করে সঠিক নম্বরটি জেনে নিন।

অনুসন্ধান বা Search বাটনে ক্লিক করার পর নিচের মত আপনার নিবন্ধন এন্ট্রিটি দেখতে পাবেন।

জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি করার নিয়ম

এখানে নির্বাচন করুন বাটনে ক্লিক করুন এবং কনফার্ম করুন।

জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি করার নিয়ম

ধাপ ৩ঃ নিবন্ধন কার্যালয়ের ঠিকানা বাছাই

এ ধাপে আপনি নিবন্ধন কার্যালয় বাছাই করতে হবে (আপনি যে ইউনিয়ন বা পৌরসভায় জন্ম নিবন্ধন করেছিলেন)

জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি করার নিয়ম

এখানে, আপনার দেশ, বিভাগ, জেলা, সিটি কর্পোরেশন বা উপজেলা সিলেক্ট করে আপনি যে পৌরসভা বা ইউনিয়ন পরিষদে জন্ম নিবন্ধন করেছিলেন তা বাছাই করুন।

ধাপ ৪ঃ ইংরেজি তথ্যসমূহ যুক্ত করুন

এবার নিচের মত একটি ফরম আসবে। এখানে শুধুমাত্র ইংরেজি তথ্যগুলো একটি একটি করে সিলেক্ট করে নতুনভাবে ইংরেজিতে লিখুন।

সংশোধনের কারণ- ভুলভাবে লিপিবদ্ধ হয়েছে এটি সিলেক্ট করুন।

জন্ম নিবন্ধনে ইংরেজি তথ্য সংযোজন

ধাপ ৫ঃ ঠিকানা তথ্যসমূহ ইংরেজিতে লিখুন

এরপর জন্ম নিবন্ধনের ঠিকানাসমূহ, যেমন জন্মস্থানের ঠিকানা, বর্তমান ঠিকানা ও স্থায়ী ঠিকানা ইংরেজিতে দিতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি করার আবেদন

ধাপ ৬ঃ আবেদনকারীর তথ্য

সবশেষে, উপরোক্ত ইংরেজি তথ্য যুক্ত করার জন্য ‍যিনি আবেদন করছেন তার বিস্তারিত তথ্য পূরণ করতে হবে।

সাধারণত, জন্ম নিবন্ধনের এমন সংশোধনের আবেদন, নিজে অথবা পিতা-মাতা বা অভিভাবক করে থাকেন। ‍আপনার আবেদনের ক্ষেত্রে ‍যিনি করছেন তার অপশনটি সিলেক্ট করুন।

আপনি নিজে আবেদন করলে নিজ অপশনটি সিলেক্ট করুন। আবেদনকারীর নাম, ঠিকানা ও ফোন নম্বর দিন।

আবেদনকারী যদি, পিতা-মাতা ছাড়া অন্য কেহ হয়, যেমন পিতামহ, পিতামহী, মাতামহ, মাতামহী, অভিভাবক বা অন্যান্য তাহলে তার জন্ম নিবন্ধন নম্বর বা জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর দিতে হবে।

এরপর কোন, প্রমাণপত্র বা ডকুমেন্ট আপলোড করলে করতে পারেন।

সবশেষে, ফি আদায় অপশনটি যেভাবে আছে সেভাবে রেখে, সাবমিট বাটনে ক্লিক করে আবেদনটি সম্পন্ন করুন। আবেদনটির একটি প্রিন্ট কপি নিন এবং প্রিন্ট কপিটি নিয়ে নির্ধারিত তারিখের আগেই, আপনার বাছাই করা নিবন্ধন কার্যালয়, ইউনিয়ন পরিষদ বা পৌরসভা অফিসে যোগাযোগ করুন।

Similar Posts

2 Comments

  1. নিয়ম মেনে আবেদন করলে, সেই আবেদন কবে নাগাদ সম্পন্ন হবে তার কোন ঠিক নেই। তবে হ্যাঁ, যদি সঠিক জাগায় টাকা দেয়া হয়, তবে সহজেই তা সম্পন্ন হয়।
    এছাড়া টাকা দেয়ার পরো দিনের পর দিন ধর্না দিয়েও কাজ হয়না।
    আমরা সাধারন ব্যাস্ত মানুষ, এত ধকল কি করে সইব?🥺🥺🥺

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।