ই পাসপোর্ট আবেদনে নামে ডট ব্যবহার করা যাবে কিনা (সঠিক সমাধান)

জানুন পাসপোর্ট আবেদনে নামে ডট (.) দেয়া যাবে কিনা তার সঠিক তথ্য, আবেদনে ডট দিয়ে ফেললে কিভাবে সমস্যাটি সমাধান করবেন বিস্তারিত।

পাসপোর্ট আবেদনে নামে ডট ব্যবহার

বাংলাদেশে আমরা অনেকেই জন্ম নিবন্ধন ও জাতীয় পরিচয়পত্রে সংক্ষিপ্ত নামের পরে (.) ডট ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু পাসপোর্ট করতে গেলে নামের পরে এই ডট ব্যবহার করা যাবে কিনা তা নিয়ে সঠিক তথ্য জানানোর চেষ্টা করবো।

আপনি হয়তো নতুন ই পাসপোর্ট করতে চান বা আপনার আগের এমআরপি পাসপোর্ট আছে এখন ই পাসপোর্টে রিনিউ করতে চান। এমতাবস্থায় আপনার এনআইডিতে যদি নামের কোন অংশে ডট (.) থাকে, আপনি কিভাবে আবেদন করবেন, ডট ব্যবহার করবেন? নাকি করবেন না তা নিয়ে বিস্তারিত বলছি।

পাসপোর্টে নামে ডট ব্যবহার করার অসুবিধা

নামের মোটামুটি স্বীকৃত রূপ হচ্ছে, নামের তিনটি অংশ থাকবে First Name (Given Name), Middle Name, ও Last Name (Family Name). যেমন যেমন George Walker Bush।

এখানে George হল First Name বা Given Name অর্থাৎ মূল নাম/প্রদত্ত নাম। আর Walker হল Middle Name বা মধ্য নাম, Last Name বা শেষ নাম হচ্ছে Bush।

অফিসিয়ালি Middle Name থাকলেও তা ব্যবহার করা ঐচ্ছিক। অধিকাংশ সময় এটা initial হিসেবে লেখা হয়ে থাকে যেমন George W. Bush।

কিন্তু বাংলাদেশে যখন আমরা A.H.M. Kamal Uddin এভাবে নাম লিখি, তখন দেখা যায় First Name হিসেবে, ৩টি লেটার ডট দিয়ে সংক্ষিপ্ত নাম ব্যবহার করা হয়েছে (Abul Hasanat Mohammad Kamal Uddin)।

এভাবে First Name বা Given Name হিসেবে কোনও Letter ব্যবহার করা উচিত না। তাছাড়া এভাবে ডটসহ ৩টি Letter মানে ৩টি নামের Initial যেটি বিভ্রান্তিকর। এভাবে নামের শুরুতে গোটা তিনেক ইনিশিয়াল দেখে বিদেশীরা কনফিউজড হয়।

পাসপোর্ট বা অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্টে সবসময় First Name এবং Last Name সংক্ষিপ্ত করার নিয়ম নেই। Middle Name ব্যবহার না করলেও চলে বা সেটি সংক্ষিপ্তভাবে শুধু একটি লেটার দিয়ে প্রকাশ করা যায়।

এক্ষেত্রে ডট (.) ব্যবহার করলে যা না করলেও তাই। অর্থাৎ, George W Bush বা George W. Bush একই। এখানে এটি কোন কনফিউজন তৈরি করে না।

এমআরপিতে নামে ডট নেই কিন্তু এনআইডিতে ডট আছে

আপনারা যারা আগে এমআরপি পাসপোর্ট করেছেন, তাদের অনলাইন আবেদন ফরম পূরণ করার সময় নামে ডট (.) লিখলেও স্বয়ংক্রীয়ভাবে তা বাতিল হয়ে যেত। আর কেউ হাতে লেখা ফরমে ডট লিখে আবেদন করলেও, পাসপোর্ট অফিসের অপারেটররা ডট বাদ দিয়ে তথ্য এন্ট্রি করেছিলেন। তাই এমআরপিতে নামে ডট থাকে না।

জাতীয় পরিচয় পত্র নিবন্ধনের সময় আমাদের জন্ম নিবন্ধন ও সার্টিফিকেট অনুসারে করা হয়, এক্ষেত্রে সার্টিফিকেটে কারো নামে ডট থাকলে তা জাতীয় পরিচয়পত্রে ও চলে আসে।

আপনার এনআইডি নামের কোন অংশে ডট থাকলে তা নিয়ে খুব বিচলিত হওয়ার কোন কারণ নেই। ডট (.) বাদে আপনার আবেদন সাবমিট করলেই চলবে।

ই পাসপোর্ট আবেদনে নামে ডট ব্যবহার করা যাবে কিনা

ই পাসপোর্ট আবেদনে নামে ডট (.) ব্যবহার করা যাবে না। আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রে বা জন্ম নিবন্ধনে (.) ডট থাকলেও পাসপোর্ট আবেদনে ডট ব্যবহার করবেন না। তাই এই বিষয়টি খেয়াল রেখে পাসপোর্ট আবেদন পূরণ করবেন।

আমরা সবাই হয়তো জানি যে, ই পাসপোর্টের তথ্য সম্পুর্নভাবে জাতীয় পরিচয় পত্র বা জন্ম নিবন্ধনের মত হতে হবে। কথাটি সম্পূর্ণ সঠিক। ই পাসপোর্ট করতে হলে NID এর তথ্য অনুসারেই আবেদন করতে হবে।

সেক্ষেত্রে আপনার প্রশ্ন হতে পারে যে, আমার এনআইডিতে Md. Kamal Uddin আছে, তাহলে পাসপোর্ট আবেদন কিভাবে করব? এক্ষেত্রে আপনি আবেদন করার সময় লিখবেন MD KAMAL UDDIN, অর্থাৎ শুধুমাত্র (.) ডট বাদ দিয়ে লিখবেন।

এমআরপি পাসপোর্টের আবেদনে ডট লিখলেও স্বয়ংক্রীয়ভাবে তা বাদ হয়ে যেত। কিন্তু ই পাসপোর্ট আবেদনে ডট লিখতে পারবেন এবং আবেদন Submit করতে পারবেন। তবে নামে ডট (.) দিয়ে পাসপোর্ট আবেদন করলে পাসপোর্ট অফিস তা গ্রহণ করতে চাইবে না।

নামে ডট (.) দিয়ে পাসপোর্ট আবেদন করা হলে সংশোধন করার নিয়ম

আপনি ই পাসপোর্ট আবেদনে নামের কোন অংশে ডট দিয়ে আবেদন সাবমিট করে ফেলেছেন। এমতাবস্থায় পাসপোর্ট অফিস আপনার আবেদন জমা নিচ্ছে না। এক্ষেত্রে কিভাবে সমস্যাটির সমাধান করবেন আসুন জানি।

পাসপোর্ট আবেদনে কোন ভুল থাকলে তা পাসপোর্ট অফিস সাধারণতই গ্রহণ করতে চাইবে না। আপনাকে তা সংশোধন করে নতুন আবেদন করতে হবে।

কিন্তু আপনি আগের আবেদনটি বাতিল না করলে আবার নতুনভাবে আবেদনও করতে পারবেন না। ভুল হওয়া আবেদনটি বাতিল করে আবার নতুন আবেদন করতে আরও ২/১ দিন বেশি সময় লেগে যাবে।

এমতাবস্থায় সবচেয়ে সহজ ও ভাল উপায় হচ্ছে পাসপোর্ট আবেদনটি সংশোধন করার আবেদন করা। আপনাকে আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারি পরিচালক/উপ-পরিচালক বরাবর একটি আবেদন লিখতে হবে।

আবেদনে উল্লেখ করবেন যে পাসপোর্ট আবেদনে আপনার নাম ভুলবশত MD এর পরিবর্তে MD. লেখা হয়েছে। এমতাবস্থায় আপনি এটি সংশোধন করতে চান। আপনার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে পাসপোর্ট অফিস আপনার বায়োমেট্রিক গ্রহণের সময় প্রয়োজনীয় সংশোধন করে দিবেন।

এতে আগের আবেদন বাতিল করে, আবার নতুন আবেদন করার সময়টুকে বেচে যাবে।

শেষকথা

যেহেতু নামে ডট (.) ব্যবহারের ক্ষেত্রে কিছু জটিলতা ও অসুবিধা দেখা যায়, এটি ব্যবহার না করাই উত্তম। শুধুমাত্র একটি ডট থাকা না থাকা একই কথা। এক্ষেত্রে বিশ্বের কোন দেশেই এটি নিয়ে সমস্যা হয় না। তাই সবসময় যে কোন ডকুমেন্টেই ডট ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন।

পাসপোর্ট, জাতীয় পরিচয়পত্র, জন্ম নিবন্ধন, ভ্যাট-ট্যাক্স সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর, টিপস-ট্রিকস পেতে নিয়মিত ভিজিট করুন- eservicesbd.com এবং সরাসরি কোন জিজ্ঞাসার জন্য যোগাযোগ করুন আমাদের ফেইসবুক পেইজ- Eservicesbd.

FAQs

আমার এমআরপিতে MD কিন্তু এনআইডি কার্ডে MD. আছে, কিভাবে পাসপোর্ট আবেদন করব?

শুধুমাত্র (.) ডট ছাড়া পুরাতন পাসপোর্টের সাথে নাম ও অন্যান্য তথ্য মিল থাকলে এটা কোন সমস্যা নয়। পাসপোর্ট আবেদন করার সময় ডট বাদ দিয়ে আবেদন করলেই চলবে।

আমার এমআরপিতে MD কিন্তু এনআইডি কার্ডে MOHAMMAD আছে, কিভাবে পাসপোর্ট আবেদন করব?

এক্ষেত্রে আপনার হাতে ২টি উপায় আছে। ১) পাসপোর্ট সংশোধন – এনআইডি অনুসারেই ই পাসপোর্টের জন্য আবেদন করবেন। ২) জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন- এক্ষেত্রে পাসপোর্ট অনুসারে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন করে নিতে হবে। তারপর পাসপোর্ট রিনিউ করার আবেদন করতে হবে।

পাসপোর্ট সংক্রান্ত আরো তথ্যের লিংক

আবেদনই পাসপোর্ট অনলাইন আবেদন
ই পাসপোর্ট চেকই পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম
ফি’র পরিমাণই পাসপোর্ট ফি কত
পাসপোর্ট রিনিউই পাসপোর্ট রিনিউ করার নিয়ম
পাসপোর্ট হারিয়ে গেলেপাসপোর্ট হারিয়ে গেলে করণীয়
পাসপোর্টের সকল তথ্যই পাসপোর্ট
হোমপোইজে যানHome

সকল আপডেট তথ্যের জন্য Facebook Page

Similar Posts

মন্তব্য করুন