পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে করণীয় | হারানো পাসপোর্ট ফিরে পাওয়ার উপায়

দেশে বা বিদেশে অনাকাঙ্খিতভাবে আপনার পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে কিভাবে পাসপোর্ট ফিরে পাবেন জেনে নিন।

বিদেশ ভ্রমণ ও বিদেশে অবস্থানকালে পাসপোর্ট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি ডকুমেন্ট। পাসপোর্ট হারালে অনেক সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়। এই পোস্টে জানাবো পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে করণীয় সম্পর্কে। আশা করি আপনার অনেক কাজে লাগবে।

ভ্রমণকালীন সময়ে বিদেশে আপনার একমাত্র পরিচয়পত্র হচ্ছে পাসপোর্ট। তাই এটি হারালে কি করতে হবে আপনার জানা উচিত। দেশে এবং বিদেশে অবস্থানকালে পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে কি করতে হবে, কিভাবে জিডি আবেদন লিখবেন সব কিছু বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করব।

দেশে পাসপোর্ট হারালে করণীয়

দেশে পাসপোর্ট হারালে আপনার খুব অসুবিধা হবে না। আপনার নিকটস্থ থানায় পাসপোর্ট হারানোর বিষয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি করুন। এরপর অনলাইনে নতুনভাবে আবার ই পাসপোর্ট রিইস্যুর আবেদন করুন। আবেদনের সময় ID Documents অপশন থেকে পূর্ববর্তী পাসপোর্ট বাছাই করুন এবং রিইস্যুর কারণ হিসেবে Lost/Stolen দিন। সবশেষে আবেদনটি জিডি কপি ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ পাসপোর্ট অফিসে জমা দিন।

১. সাধারণ ডায়েরি বা রিপোর্ট

পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে প্রথমেই যেখানে হারিয়েছে তার নিকটস্থ পুলিশ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করুন। নতুনভাবে হারানো পাসপোর্ট ফিরে পেতে আপনার অবশ্যই হারানোর জিডি কপি আবশ্যক।

কিভাবে জিডি লিখবেন তার নমুনা দেখতে পারেন- পাসপোর্ট হারানোর জিডি লেখার নিয়ম

২. অনলাইনে পাসপোর্ট রিইস্যুর আবেদন

আপনি যেহেতু বাংলাদেশেই অবস্থান করছেন, সহজেই অনলাইনে আবেদন করে নতুন পাসপোর্ট পেতে পারেন। অনলাইনে হারানো পাসপোর্ট রিইস্যুর আবেদন করতে ভিজিট করুন- epassport.gov.bd. এরপর পূর্বের একাউন্ট থাকলে Sign In করুন। নতুন আবেদন করলে, Apply Online মেন্যু থেকে, একাউন্ট করে আবেদন করুন।

হারানো পাসপোর্ট ফিরে পাওয়ার উপায়

অনলাইনে আবেদনের ক্ষেত্রে ID Documents ধাপ থেকে পূর্ববর্তী পাসপোর্টের ধরণ সিলেক্ট করুন। এবং Reason for Reissue হিসেবে Lost/ Stolen অপশনটি বাছাই করুন। তারপর আপনার পাসপোর্ট নম্বর, ইস্যু ও মেয়াদ উর্ত্তীণের তারিখে বাছাই করুন।

পূর্বের পাসপোর্টটি MRP পাসপোর্ট হলে, ই পাসপোর্টের আবেদন করতে অবশ্যই NID বা BRC অনুসারে আবেদন করতে হবে। NID অথবা BRC তে নাম ও বয়স যা আছে তা পরিবর্তন করতে পারবেন না। এক্ষেত্রে এনআইডি বা জন্ম নিবন্ধন অনুসারে পূর্বের পাসপোর্টের সাথে নাম বা ঠিকানার আংশিক বা ছোট খাট পরিবর্তন থাকলে তা করতে পারেন।

কিন্তু পূর্বের পাসপোর্টটি ই পাসপোর্ট হলে, অবশ্যই আগের পাসপোর্টের হুবহু তথ্য দিয়েই অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

আবেদন সম্পন্ন ও পাসপোর্ট ফি পরিশোধ করে প্রয়োজনীয় সকল ডকুমেন্ট আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে জমা দিন।

৩. পাসপোর্ট লস্ট সার্কুলার কপি সংগ্রহ

কোন পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট কর্তৃপক্ষ পাসপোর্টটি হারানোর বিষয়ে সকল পাসপোর্ট অফিস, বিমানবন্দর ও পোর্টকে অবগত করার জন্য যে সার্কুলার জারি করে তাকে পাসপোর্ট লস্ট সার্কুলার বলে।

সাধারণত, কেউ পাসপোর্টটি পেলে যদি নিকটস্থ থানা, পাসপোর্ট অফিস বা পোর্টে জমা দেয়, এটি পাসপোর্ট অধিদপ্তর যেন অবগত হতে পারে এজন্য এই সার্কুলার জারি করা হয়।

আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে সকল কাগজপত্র জমা দিয়ে রিইস্যুর আবেদন করার সময় অবশ্যই আপনি সেখান থেকে পাসপোর্ট লস্ট সার্কুলার বা পাসপোর্ট লস্ট সার্টিফিকেট সংগ্রহ করবেন।

বিদেশে পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে করণীয়

বিদেশে ভ্রমণকালে পাসপোর্ট হারালে প্রথমেই নিকটস্থ থানায় একটি অভিযোগ বা সাধারণ ডায়েরী করতে হবে। এরপর সেই দেশে অবস্থানরত বাংলাদেশ দূতাবাস বা কনস্যুলেট অফিসে ভিজিট করে পাসপোর্ট হারানোর বিষয়টি জানান। দূতাবাস থেকে পাসপোর্ট রিইস্যুর আবেদন এবং দেশে ফিরে আসার জন্য সহযোগিতা চাইতে পারেন।

যদি আপনি দেশে ফিরে আসতে চান, দূতাবাস আপনাকে সব রকম সহযোগিতা করবে। তাছাড়া, আপনি যদি বিদেশে কর্মরত থাকেন এবং সে দেশ থেকেই নতুন পাসপোর্ট পেতে চান, দূতাবাস থেকে পাসপোর্ট রিইস্যুর আবেদন করুন। সেই দেশে ই পাসপোর্ট কার্যক্রম চালু থাকলে অনলাইনে ই-পাসপোর্ট রিইস্যুর আবেদন করতে পারেন।

১. সাধারণ ডায়েরি বা রিপোর্ট

ভ্রমণের সময় পাসপোর্ট হারিয়ে ফেললে দ্রুত সময়ের মধ্যে নিকটস্থ পুলিশ স্টেশনে যোগাযোগ করে রিপোর্ট করুন। পুলিশ স্টেশন থেকে সাধারণ ডায়েরী করার পর জিডি কপি / পাসপোর্ট হারানোর বিষয়ে পুলিশ সার্টিফিকেট সংগ্রহ করুন।

সেই দেশের প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী পুলিশ স্টেশনের রিপোর্ট করলে, তারাই আপনাকে সবরকম সহযোগিতা করবে। পরবর্তীতে যে কোন ধরণে আইনি কার্যক্রমে এই পুলিশ সার্টিফিকেট বা জিডি কপি আপনাকে সাহায্য করবে।

কোথাও আপনার ট্রাভেলের সময়ও পুলিশ চেক করলে বা পাসপোর্ট চাইলে আপনি পাসপোর্ট হারানোর জিডি কপি দেখাবেন।

২. দূতাবাস বা কনস্যুলেট অফিসে যোগাযোগ

জিডি করা বা পুলিশ স্টেশনে রিপোর্ট করার পর যত দ্রুত সম্ভব আপনি বাংলাদেশ দূতাবাস বা কনস্যুলেট অফিসে যোগাযোগ করবেন। এক্ষেত্রে অবশ্য আপনি স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে যোগাযোগ করবেন।

দূতাবাসে আপনার পাসপোর্ট হারানো ব্যাপারে জানান। দূতাবাস থেকেই পরবর্তীতে আপনার দেশে ফিরে আসা বা পুনরায় পাসপোর্ট পাওয়ার জন্য যা করণীয় সব করতে পারবেন।

সাধারণত কোন দেশের রাজধানীতেই প্রধান বাংলাদেশ দূতাবাস অবস্থিত থাকে। এছাড়া, অন্যান্য বিভিন্ন স্টেটগুলোতে আঞ্চলিক কনস্যুলেট জেনারেলের অফিস থাকে যা প্রধান দূতাবাসের শাখা হিসেবে সেবা প্রদান করে।

আপনি যেখানে বা যে স্টেটে অবস্থান করছেন জেনে নিন, আপনার নিকটস্থ কনস্যুলেট অফিস আছে কিনা। নয়তো আপনাকে সে দেশের রাজধানীতে গিয়ে প্রধান দূতাবাসে যোগাযোগ করতে হবে।

দূতাবাসে যোগাযোগ করার সময় আপনার যে সমস্ত কাগজপত্র লাগবে;

  • হারানো পাসপোর্টের তথ্য পৃষ্ঠাসমূহ (Passport information pages- page 2-3)
  • পাসপোর্ট হারানোর জিডি/ পুলিশ সার্টিফিকেট
  • জন্ম নিবন্ধন সনদ/ জাতীয় পরিচয়পত্র

৩. ট্রাভেল পাস সংগ্রহ

যেহেতু নতুন পাসপোর্ট পেতে বেশ কিছুদিন সময় লাগবে, এসময় আপনার ভ্রমণের সুবিধার জন্য, আপনি সে দেশে ট্রাভেলের জন্য একটি ট্রাভেল পাস সংগ্র করতে পারেন।

ট্রাভের পাস সংগ্রহের জন্য দূতাবাস বা কনস্যুলেট অফিস আপনাকে সহায়তা করতে পারে।

৪. দেশে ফিরতে সহযোগিতা গ্রহণ/ পাসপোর্ট রিইস্যুর আবেদন

যদি আপনি দেশে ফিরে আসতে চান, এ ব্যাপারে দূতাবাসের সহযোগিতা চাইতে পারেন। অথবা, আপনি সেই দেশেই অবস্থান করে নতুন পাসপোর্ট পেতে চান, পাসপোর্ট রিইস্যুর আবেদন করুন।

সে দেশে ই পাসপোর্ট কার্যক্রম চালু না হলে, আপনি এমআরপি পাসপোর্ট রিইস্যুর আবেদন ফরমটি ডাউনলোড করে সঠিকভাবে পূরণ করে আবেদন করুন। আর ই পাসপোর্ট কার্যক্রম চালু হলে, অনলাইনে রিইস্যুর আবেদন করতে পারেন।

৫. পাসপোর্ট লস্ট সার্কুলার কপি সংগ্রহ

দূতাবাসে যোগাযোগ করে আপনার পাসপোর্ট হারানোর বিষয়ে রিপোর্ট করার সময় অবশ্যই পাসপোর্ট লস্ট সার্কুলারের জন্য আবেদন করুন। ভবিষ্যতে ভিসা আবেদন ও বিভিন্ন আইনি কার্যক্রমের জন্য পাসপোর্ট লস্ট সার্কুলার একটি অতি প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট।

পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে জিডি করার নিয়ম

বাংলাদেশে পাসপোর্ট হারালে জিডি করার জন্য, যেখানে হারিয়েছে তার নিকটস্থ থানায় একটি লিখিত আবেদন করতে হয়। আপনার আবেদনে অবশ্যই আপনার নাম, পাসপোর্ট নম্বর, ইস্যুর স্থান, ইস্যুর তারিখ ও মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ উল্লেখ করতে হবে। লিখিত আবেদনের ২ টি কপি করবেন।

হারানো পাসপোর্টের কোন ফটোকপি না থাকলে এবং পাসপোর্ট নম্বর জানা না থাকলে কিভাবে পাসপোর্টের তথ্য বের করবেন

যদি নিকটস্থ থানায় আপনার জিডি গ্রহন না করে বা কোন সহযোগিতা না করে থাকে, সেই সার্কেলের এএসপি বরাবর অভিযোগ করতে পারেন।

পাসপোর্ট হারানোর জিডির নমুনা

তারিখঃ

ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা

পুলিশ স্টেশনের নাম

উপজেলা, জেলা

বিষয়ঃ পাসপোর্ট হারানোর বিষয়ে সাধারণ ডায়েরী করার আবেদন

জনাব

যথাযোগ্য সম্মান প্রদর্শনপূর্বক বিনীত নিবেদন এই যে, আমি নাম, পিতা-…………. আমার নামে ইস্যু করা পাসপোর্টটি গতকাল চট্রগ্রাম বহদ্দারহাট এলাকায় (হারানোর এলাকা) হারিয়ে ফেলি। পাসপোর্টটির তথ্য নিম্নরুপ;

  • নাম-
  • পাসপোর্ট নম্বর-
  • ইস্যুর স্থান-
  • ইস্যুর তারিখ- মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ-

এমতাবস্থায়, মহোদয়ের নিকট আমার বিনীত আবেদন এই যে, পাসপোর্টটি হারানোর বিষয়ে একটি সাধারণ ডায়েরী ও প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান করতে আপনার মর্জি হয়।

স্বাক্ষর

নাম-

পাসপোর্ট নং-

মোবাইল নম্বর-

ঠিকানা-

হারানো পাসপোর্টের ফটোকপি ও পাসপোর্ট নম্বর জানা না থাকলে করণীয়

পাসপোর্ট হারিয়ে ফেলেছেন কিন্তু এর কোন ফটোকপি আপনার কাছে নেই। পাসপোর্ট নম্বর ও আপনার মনে নেই। এমতাবস্থায় থানায় জিডি ও করতে পারবেন না। কারণ জিডি করতে পাসপোর্টের নম্বর ইস্যু ও মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ উল্লেখ করতে হয়। আসুন জানি এক্ষেত্রে কিভাবে পাসপোর্টের নম্বর জানতে পারবেন ও তথ্য পাবেন।

হারানো পাসপোর্টের ফটোকপি ও পাসপোর্ট নম্বর জানা না থাকলে যে কোন আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস থেকে পাসপোর্টের তথ্য বের করতে পারেন। এজন্য প্রয়োজন হবে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধন সনদ যেটি ব্যবহার করে পাসপোর্ট করেছেন। আপনার ব্যক্তিগত পরিচিতি নম্বর (এনআইডি/জন্ম নিবন্ধন নম্বর) দিয়ে পাসপোর্ট ডাটাবেইজ থেকে সার্চ করে আপনার তথ্য পাওয়া যাবে।

পাসপোর্ট অফিসে সবাই খুব ব্যস্ত এবং এ ধরণের সহযোগিতা করতে তারা কেমন আন্তরিক তা বলা যায় না। তাই তাদেরকে সময় দিয়ে ও অনুরোধ করে এই সহযোগিতা নিতে পারেন।

পাসপোর্টের তথ্য জানতে পারলে এরপর যত দ্রুত সম্ভব থানায় সাধারণ ডায়েরী করুন।

FAQ

পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে কি করব

পাসপোর্ট হারালে হারানোর স্থলের নিকটস্থ থানায় ৩০ দিনের মধ্যে একটি সাধারণ ডায়েরী করুন। এরপর আপনি দেশে অবস্থান করলে, জিডি কপি ও পাসপোর্টের ফটোকপি সহ পাসপোর্ট রিইস্যু করার জন্য নতুনভাবে আবেদন করুন। বিদেশে অবস্থান করলে, জিডি কপি ও পাসপোর্টের ফটোকপি নিয়ে সে দেশে অবস্থানরত দূতাবাস বা কনস্যুলেট অফিসে সহযোগিতার জন্য যোগাযোগ করুন।

পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে নতুন পাসপোর্ট কিভাবে বানাবো

পাসপোর্ট হারালে নতুন পাসপোর্ট বানানোর জন্য পাসপোর্ট হারানোর বিষয়ে জিডি কপি, পাসপোর্টের তথ্য পৃষ্টার কপি ও জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধনের কপি সহ পাসপোর্ট রিইস্যুর আবেদন করতে হবে। ই পাসপোর্ট রিইস্যুর জন্য অনলাইনেই আবেদন করতে পারেন।

পাসপোর্ট সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্যের জন্য পড়ুন- ই পাসপোর্ট

Similar Posts

2 Comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।